Archive for the ‘উবুন্টু / মিন্ট’ Category


উবুন্টু’র সাথে আমার পরিচয় খুব বেশী দিনের না। দেড় বছরের মত হবে। ব্যবহারের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত নিয়মিতই এটি ব্যবহার করছি। বেশ ভালোই লাগে। ঝামেলা কম।

৮.১০ থেকে ১১.০৪ সবগুলোই চালিয়ে দেখেছি। কিন্তু এবারে ১১.০৪ চালাতে গিয়ে আমি মোটামুটি হতাশই হয়েছি। অবশ্য, অনেকে হয়তো নাও হতে পারেন। ঝামেলা শুরু হয় সেই ডাউনলোড থেকে ….. পর পর দুবার আইএসও ফাইল ডাউনলোডের পরেও কাজ করলো না। পরে ফ্রেন্ডের কাছ থেকে আইএসও সংগ্রহ করলাম। ফ্রেন্ডের কাছ থেকে আইএসও সংগ্রহ করতে গিয়েই ওর পিসিতে চালিয়ে দেখলাম। একটার পর একটা ঝামেলা লেগেই থাকে। সব থেকে বড় যে ঝামেলায় পড়ি তা হল….. রিপোজিটরি ফাইল ডাউনলোডে সমস্যা। অনেক রিপোজিটরি ফাইল ডাউনলোড করতে পারি নি। তাই ১১.০৪ ব্যবহারের পূর্ণ মজা লাভের আশাও অনেকটা ছেড়ে দিলাম। (more…)

উইন্ডোজ প্লাটফর্ম থেকে যারা লিনাক্স প্লাটফর্মে আসে তারা প্রথমেই যে একটা হোচট খায় সেটা হল, উইন্ডোজের মত কোন ‘স্টার্ট বাটন’ খুঁজে না পেয়ে। আর তখনই শুরু হয় গালাগালি… ‘লিনাক্স ভালো না’, ‘লিনাক্স ভুয়া’ ইত্যাদি….. তাই ভাই আপনাদের বলছি, শান্ত হন, মাথা ঠান্ডা রাখুন। সবই আছে। কি লাগবে আপনার…?? সাধের ‘স্টার্ট বাটন’..?? দাঁড়ান…দিচ্ছি…

লিনাক্স ইউজের ক্ষেত্রে যারা প্রথমেই ‘লিনাক্স মিন্ট’ দিয়ে শুরু করেন তাদের ক্ষেত্রে এই চিল্লাপাল্লার হার কিছুটা কম হলেও বেশী শোনা যায় ‘উবুন্টু’ ইউজারদের। তাই আপনাদের এই অহেতুক চিল্লানি বন্ধ করতে ‘উবুন্টুতে’ আছে ‘GnoMenu’ (লিনাক্স মিন্ট ইউজারদের এটা না হলেও চলবে, কারণ, আপনাদের ডিফল্ট ভাবেই দেয়া আছে ‘মিন্ট মেনু’)। তবে অনেককে আবার বলতে শোনা যায়, এটা (GnoMenu) সেট-আপ করা নাকি অনেক ঝামেলার। আসলেই কি তাই….?? চলুন তো চেষ্টা করে দেখি…. উবুন্টুতে অ্যাকটিভ করতে পারি কিনা GnoMenu. (more…)


গেমসের প্রতি আমার আগ্রহ কোন কালেই খুব একটা ছিলো না। তাই এটা নিয়ে খুব একটা ঘাটাঘাটিও করিনি কখনো। কিন্তু প্রায় সময়ই একটা কমন প্রশ্নের সম্মুখিন হতে হয়…. আর সেটা হল…’ভাই উবুন্টুতে কি গেমস আছে..?? এতে কি উইন্ডোজের সব গেমস চালাতে পারবো…??’ আজকের এই লেখাটা মূলত সেই সব প্রশ্নকারীদের জন্যই। অনেকেই হয়তো জানেন উবুন্টুতে ‘ওয়াইন’ নামের একটা সফটওয়্যার আছে, যেটা দিয়ে বিভিন্ন উইন্ডোজ প্লাটফর্মের ফাইল অনায়াসে  উবুন্টুতে চালিয়ে ফেলা যায়। তাই ‘ওয়াইন’ ব্যবহার করে আপনি অনেক গেমসই উবুন্টুতে চালাতে পারবেন। তারপরেও অনেকের প্রশ্ন থাকতে পারে … ‘ওয়াইন’ দিয়ে কি কি গেমস চালানো যায় তা যদি আগে জানা থাকতো তাহলে বেশ সুবিধাই হত। বেশ…. নিচে কয়েকটা লিংক দিয়ে দিচ্ছি, সেখানে আপনি লিনাক্সে ‘ওয়াইন’ ভিত্তিক বিভিন্ন গেমসের পাশাপাশি লিনাক্সেরও বিভিন্ন গেমসেরও তালিকা পাবেন। তাহলে….. ঝটপট চোখ বুলিয়ে নিন তালিকা গুলোতে আর দেখুন, আপনার প্রিয় গেমসটি সেখানে খুঁজে পান কিনা….. (more…)

অনেকেই আছেন যারা উবুন্টু ব্যবহার করছেন। আবার অনেকেই আছেন ব্যবহার না করলেও এর নাম নাম নিশ্চই শুনেছেন। তবুও একটু বলে রাখি, উবুন্টু হচ্ছে লিনাক্সের একটি ডিস্ট্রো। লিনাক্স হচ্ছে সোর্সকোড উন্মুক্ত সম্পূর্ণ ফ্রি একটি অপারেটং সিস্টেম। এর মানে হচ্ছে আপনি এটি বিনামূল্যে ব্যবহার করার পাশাপাশি আপনি চাইলে আপনার সুবিধামত এর পরিবর্তনও করে নিতে পারবেন। আর এই উবুন্টুকে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে দিতে যে কোম্পানিটি কাজ করে যাচ্ছে তার নাম হচ্ছে ক্যনোনিকাল । উবুন্টুকে ছড়িয়ে দেবার জন্য ও উবুন্টু ব্যবহারকারীদের মধ্যে বন্ধন আরো মজবুত করার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশে উবুন্টুর লোকো টিম গড়ে উঠেছে। লোকো (LoCo) টিম হচ্ছে লোকাল কমিউনিটিউবুন্টু বাংলাদেশ হচ্ছে ক্যানোনিকালের অনুমোদিত বাংলাদেশের জন্য একমাত্র লোকো টিম। উবুন্টু বাংলাদেশ ছাড়া অফিসিয়ালি আর কোনো টিম বাংলাদেশে উবুন্টু বিষয়ক কোন ধরণের কার্যক্রম চালাচ্ছে না। ক’দিন আগে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হওয়া “বন্টু-মিন্টু’র আড্ডা”টির আয়োজনও করেছিল উবুন্টু বাংলাদেশ। সুতরাং বাংলাদেশে উবুন্টু সংক্রান্ত কোন কার্যক্রম পরিচালনা করার একমাত্র অধিকার রাখে ‘উবুন্টু বাংলাদেশ’। তাই অন্য কোন পতিষ্ঠান যদি এমন কোন কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে তবে সেটা হবে সম্পূর্ণ অবৈধ। (more…)

বর্তমান সময়ে উবুন্টু/মিন্ট নিয়া বেশ ভালোই চিল্লা-পাল্লা শুরু হইছে। আর যদি কোন মতে নতুন ইউজার হইতে পারে তাহলে তো আর কোন কথাই নাই….এক্কেবারে চিল্লানির চোটে দুনিয়াদারি আন্ধার বানাইয়া ফেলায়(আমি নিজেও এই দলের এক গর্বিত সদস্য ;))। আইজ এই ক্যাঁচাল তো কাইল ওই ক্যাঁচাল….এই নিয়া চিল্লা-পাল্লা চলতেই থাকে। যেন চিল্লানি আর থামে না। আর কোন মতে যদি পরিচিত উবুন্টু ইউজার (মুরুব্বি টাইপের) পাইয়াই যায় ..তাইলে আর কোন কথা নাই। প্রোবলেম সলভ করতে করতেই ও বেচারার জান কয়লা হইয়া যাইবো। ভাবতাছেন এইসব কি কইতাছি….??? ভাই, গুল মারতাছি না… এক্কেবারে হাচা কথা। আমি নিজেই এই কাম করছি। কতোজনারে রাইত-বিরাইতে ফোন দিয়া যে রাইতের আরামের ঘুম হারাম করছি তা খালি… আমি, খোদা আর আমার জ্বালায় জর্জরিত ওই ব্যক্তিই জানে। (more…)


গত ২৩ জুলাই,২০১০ তারিখে ‘বন্টু-মিন্টুর আড্ডা’-তে গিয়ে দেখলাম, আগত অতিথিদের অনেকেই প্রশ্ন  করেছিলো উবুন্টু/মিন্টে কি করে সিটিসেল জুম আল্ট্রা’র মোডেম কনফিগার করতে হয়…??তখনই আন্দাজ করলাম যে, এই কাজটা করতে বোধয় একটু বেশীই কাঠ-খড় পোড়ানো লাগে। ব্যক্তিগত ভাবে সিটিসেল ব্যবহার না করার কারণে কখনো এই ঝামেলার সম্মুখিন হই নি। তবুও এই প্রশ্নের উত্তর খোঁজার জন্য বিভিন্ন ব্লগ ঘাটতে থাকলাম। এক সময় দু’টো সমাধান পেয়ে গেলাম।   কিন্তু এর একটা উপায়ও আমি নিজে পরীক্ষা করে দেখতে পারি নি। আপনারাই পরীক্ষা করে দেখুনতো কাজ করে কিনা…. (more…)

অবশেষে উবুন্টুতে আসতে পেরে ভালোই লাগছে । অন্তত এজন্য যে এই অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটলের পর পরই “your computer might be at risk” নামক বার্তাটা দেখায় না। বলে না এন্টিভাইরাস ইন্সটলের প্রয়োজনীয়তার কথা। কিন্তু বহুদিনের উইন্ডোজ ব্যাবহারের পর এরকম কথাবার্তা বিশ্বাস করতে মন চাইল না। আসলেই কি লিনাক্সে ভাইরাস হয় না বা নেই? (more…)